মঙ্গলবার ১৬ আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১ ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

ঘুরে আসুন অন্যতম দামি জাদুঘর মেট মিউজিয়াম

এনা অনলাইন :   শুক্রবার, ২২ জুলাই ২০২২ 12720
ঘুরে আসুন অন্যতম দামি জাদুঘর মেট মিউজিয়াম

বিশ্বের দামি জাদুঘরগুলোর অন্যতম ‘মেট মিউজিয়াম’। পাঁচ হাজার বছরের পুরোনো জিনিসও রয়েছে এখানে। নিউইয়র্কের ফিফথ অ্যাভিনিউতে এর অবস্থান। সপ্তাহে ছয় দিন এটি খোলা থাকে। বৃহস্পতিবার থেকে মঙ্গলবার। সময় সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা। শুক্র ও শনিবার সকাল ১০টা থেকে রাত নয়টা পর্যন্ত খোলা থাকে। বুধবার এই জাদুঘর বন্ধ থাকে। থ্যাংকস গিভিংয়ের দিনেও বন্ধ থাকে। এ ছাড়া ২৫ ডিসেম্বর, ১ জানুয়ারি এবং মে মাসের প্রথম সোমবার বন্ধ থাকে। তাই ঘুরে আসতে পারেন মেট জাদুঘর। এটি ভিজিট করে দ্য মেট কালেকশন, কারেন্ট ও আপকামিং এক্সিবিশন, শিডিউল ইনভেন্ট, প্রোগ্রামিং, অ্যানিমেটিস প্রভৃতি সম্পর্কে বিস্তারিত জানা যাবে।

নিউইয়র্ক স্টেটের বাসিন্দাদের জন্য সুখবর হচ্ছে, এখানে এসে স্টেটের আইডি দেখালে টিকিটের কোনো নির্দিষ্ট মূল্য প্রযোজ্য নয়। তবে নামকাওয়াস্তে উপহারস্বরূপ যে যার পছন্দমতো কয়েন ও ডলার দিতে পারেন। সর্বনিম্ন এক সেন্ট দিলেও জাদুঘরের টিকিট মিলবে। পরিবারের যেকোনো একজনের আইডি দিয়ে বাকি সবার টিকিট কেনা যাবে। তবে যারা নিউইয়র্ক স্টেটের বাসিন্দা নন, তাদের টিকিট কিনতে হবে।

জাদুঘরে প্রবেশের পর কিছু নিয়মকানুন মানতে হবে। সেখানে কোনো আর্টওয়ার্কে হাত দেওয়া যাবে না। জাদুঘরের ভেতরে কোনো কলম ব্যবহার করা যাবে না। কোনো গ্যালারিতে ভিডিও ক্যামেরা ও সেলফি স্টিক ব্যবহার করা যাবে না। ব্যক্তিগত ব্যবহারের জন্য স্টিল ফটোগ্রাফি করা যাবে, তবে কোনো ফ্ল্যাশ ব্যবহার করা যাবে না। কমার্শিয়ালের জন্য কোনো কিছু ব্যবহার করা যাবে না। সেখানকার অ্যাডমিশন ডেস্কে গেলে বিস্তারিত নিয়মাবলি জানিয়ে দেবে। অত্যন্ত নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে সেখানে প্রবেশ করতে হবে। ভেতরে রেস্ট রুম রয়েছে। ভেতরে কেউ স্ট্রলার নিতে চাইলে সেটি বিভিন্ন কর্নারে নিয়ে যাওয়ার সুযোগ আছে। এ জন্য ডেস্কে জিজ্ঞেস করতে হবে। বড় সাইজের স্ট্রলার কোনোভাবেই নিয়ে যাওয়া যাবে না। ফুড অ্যান্ড ড্রিঙ্কের বেলায়ও রয়েছে নিয়মাবলি। কোনো ধরনের খাবার ও পানি নিয়ে ভেতরে প্রবেশ করা যাবে না। তবে কেউ প্লাস্টিক বোতল নিতে চাইলে সেটি কিনে প্রবেশ করতে পারবেন।

যারা ডিসঅ্যাবল তাদের প্রবেশের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা রয়েছে। তারা প্রবেশ করবেন ৮১ স্ট্রিট এবং ৮০ স্ট্রিট পার্কিং গ্যারেজে গাড়ি রেখে। যারা যেতে চান, তারা সেখানে নির্দিষ্ট নম্বরে ফোন করে যেতে পারেন। দর্শনার্থীদের জন্য ওয়াইফাইয়ের ব্যবস্থা রয়েছে। ফোনে নেটওয়ার্কের সমস্যা হতে পারে। বড় সাইজের ব্যাগ নিয়ে যাওয়া ঠিক হবে না। প্যাটরনদের জন্য পার্কিং গ্যারেজে ১০ শতাংশ ডিসকাউন্ট রয়েছে। গ্রেট হল ও বারকি হল মেম্বারশিপ হলে অ্যাডমিশন ডেস্কে বিস্তারিত জানা যাবে। কারো কোনো জিনিস হারানো গেলে ৮২ স্ট্রিটের প্রবেশদ্বারে সিকিউরিটি ও ইনকোয়ারি ডেস্কে যোগাযোগ করতে পারবেন।
কারো ফার্স্ট এইড কিংবা মেডিকেল ইমার্জেন্সির দরকার হলে বিভিন্ন গ্যালারি এবং সব জায়গায় সিকিউরিটি অফিসার রয়েছেন, তাদের কাছে সহায়তা চাওয়া যাবে। সেখানে রয়েছে ডাইনিং দ্য অ্যাটারি, দ্য আমেরিকান উইং, রুথ গার্ডেন বার ও দ্য ব্যালকনি লাউঞ্জ।

মেট জাদুঘরে মেম্বারশিপ নেওয়ার ব্যবস্থা রয়েছে। মেম্বাররা যখন তখন যেতে পারবেন। মেম্বাররা ১০ ভাগ ডাইনিং, শপিং, পার্কিং ছাড় পাবেন এবং মেম্বারশিপ নেওয়ার সময় ২০ ভাগ ছাড় পাবেন। এর ভেতরে লাইব্রেরিও রয়েছে। থমাস জে ওয়াটসন লাইব্রেরিতে দ্য মিউজিয়াম প্রাইমারি রিসার্চ লাইব্রেরি রয়েছে। এখানে রয়েছে বিশ্বের বিভিন্ন কম্প্রিহেনসিভ কালেকশন বুক। গবেষকদের জন্য এখানে গবেষণা করার সুযোগ রয়েছে।

রয়েছে দ্য মেট স্টোর। রয়েছে বিভিন্ন ধরনের উপহার ও বুক কেনার সুযোগ। মিউজিয়ামে অ্যানপ্যারালাল কালেকশন রয়েছে। পাঁচ হাজার বছরের বেশি দিনের বিশ্বের কালচার সম্পর্কে রয়েছে অনেক জিনিস। ইতিহাস, কৃষ্টি ও সংস্কৃতি সম্পর্কে জানার অপূর্ব সুযোগ রয়েছে। এখানে বিভিন্ন জিনিস বিক্রি করে যে অর্থ পাওয়া যায়, তা পড়ালেখাসহ বিভিন্ন সেবামূলক কাজে ব্যয় করা হয়। অনলাইনেও কেনাকাটা করা যাবে।
প্রথম ফ্লোরে মডার্ন অ্যান্ড কনটেম্পোরারি আর্ট, দ্য মিশেল সি রকফেলার উইং, গ্রিক অ্যান্ড রোমান আর্ট, ইউরোপিয়ান স্ক¬্যাপচার অ্যান্ড ডেকোরেটিভ আর্টস, মেডিভেল আর্ট, রবার্ট লেহম্যান কালেকশন, দ্য আমেরিকান উইং, আর্মস অ্যান্ড আর্মার, দ্য গ্রেট হল, ইজিপশিয়ান আর্ট প্রভৃতি রয়েছে। ২ ও ৩ নম্বর ফ্লোরে রয়েছে মডার্ন অ্যান্ড কনটেম্পোরারি আর্ট, নাইনটিনথ অ্যান্ড টুয়েন্টি সেঞ্চুরি ইউরোপিয়ান পেন্টিংস অ্যান্ড স্ক্যাপচার, আর্ট অব দ্য আরাব ল্যান্ডস টার্কি, ইরান, সেন্ট্রাল এশিয়া অ্যান্ড লেটার সাউথ এশিয়া, এক্সিবিশন গ্যালারি ৮৯৯, ড্রইং প্রিন্টস অ্যান্ড ফটোগ্রাফস, গ্রিক অ্যান্ড রোমান আর্টস, এনসেন্ট নেয়ার ইস্টার্ন আর্ট, ইউরোপিয়ান পেন্টিংস ১২৫০-১৮০০, দ্য আমেরিকান উইং, মিউজিক্যাল ইন্সট্রুমেন্ট, ইউরোপিয়ান স্ক্যাপচার অ্যান্ড ডেকোরেটিভ আর্টস, ড্রইংস অ্যান্ড পেইন্টস, এশিয়ান আর্ট, এন্সেন্ট নেয়ার ইস্টার্ন আর্টসসহ বিভিন্ন জিনিস।

Facebook Comments Box

Comments

comments

Posted ৯:০৪ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, ২২ জুলাই ২০২২

America News Agency (ANA) |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আর্কাইভ

President/Editor-in-chief :

Sayeed-Ur-Rabb

 

Corporate Headquarter :

 44-70 21st.# 3O1, LIC. New York-11101. USA, Phone : +6463215067.

Dhaka Office :

70/B, Green Road, 1st Floor, Panthapath, Dhaka-1205, Phone : + 88-02-9665090.

E-mail : americanewsagency@gmail.com

Copyright © 2019-2022Inc. America News Agency (ANA), All rights reserved.ESTD-1997