শিরোনাম

প্রচ্ছদ রাজনীতি, শিরোনাম

মেয়র হলেন তাপস-আতিক

এনা অনলাইন : | রবিবার, ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | সর্বাধিক পঠিত

মেয়র হলেন তাপস-আতিক

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে (ডিএনসিসি) ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী মো. আতিকুল ইসলাম এবং একই দলের অপর প্রার্থী শেখ ফজলে নূর তাপসকে বেসরকারিভাবে বিজয়ী ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন।

শনিবার (১ ফেব্রুয়ারি) রাত সাড়ে ১১টার দিকে ঢাকা দক্ষিণের রিটার্নিং কর্মকর্তা আব্দুল বাতেন শিল্পকলা একাডেমি থেকে এবং রাত আড়াইটার পর ঢাকা উত্তরের রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. আবুল কাসেম শেরে বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় অডিটরিয়াম থেকে পৃথকভাবে এ ফলাফল ঘোষণা করেন। এর মধ্য দিয়ে ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনেই নগরপিতা হওয়ার ধারাবাহিকতা অক্ষুণ্ন রাখলো আওয়ামী লীগ।ঘোষিত ফলাফল অনুযায়ী ঢাকা উত্তরে নৌকা প্রতীক নিয়ে আওয়ামী লীগের মো. আতিকুল ইসলাম পেয়েছেন ৪ লাখ ৪৭ হাজার ২১১ ভোট।



তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির তাবিথ আউয়াল পেয়েছেন ২ লাখ ৬৪ হাজার ১৬১ ভোট। এছাড়াও হাতপাখা প্রতীকে ইসলামী আন্দোলনের শেখ ফজলে বারী মাসউদ পেয়েছেন ২৮ হাজার ২০০ ভোট, কাস্তে প্রতীকে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) প্রার্থী ডা: আহাম্মদ সাজেদুল হক রুবেল পেয়েছেন ১৫ হাজার ১২২ ভোট, আম প্রতীকে আনিসুর রহমান দেওয়ান পেয়েছেন ৩ হাজার ৮৫৩ ভোট এবং বাঘ প্রতীকে শাহীন খান পেয়েছেন ২ হাজার ১১১ ভোট।ঢাকা দক্ষিণের মোট ১,১৫০টি কেন্দ্রের মধ্যে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী শেখ ফজলে নূর তাপস নৌকা প্রতীকে ৪ লাখ ২৪ হাজার ৫৯৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।

তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির মনোনীত প্রার্থী ইশরাক হোসেন ধানের শীষ প্রতীকে পেয়েছেন ২ লাখ ৩৬ হাজার ৫১২ ভোট। এছাড়া ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী আবদুর রহমান হাতপাখা প্রতীকে পেয়েছেন ২৬ হাজার ৫২৫ ভোট। গণফ্রন্টের প্রার্থী আবদুস সামাদ সুজন মাছ প্রতীকে পেয়েছেন ১২ হাজার ৬৮৭ ভোট।অন্যদিকে জাতীয় সংসদের প্রধান বিরোধী দল জাতীয় পার্টির প্রার্থী সাইফুদ্দিন আহমেদ মিলন লাঙল প্রতীকে পেয়েছেন মাত্র পাঁচ হাজার ৫৯৩ ভোট।

এছাড়া বাংলাদেশ কংগ্রেসের মো. আক্তারুজ্জামান ওর‌ফে আয়াতুল্লাহ ডাব প্রতীকে দুই হাজার ৪২১ এবং ন্যাশনাল পিপলস পার্টির মো. বাহারা‌নে সুলতান বাহার আম প্রতীকে তিন হাজার ১৫৫টি ভোট পেয়ে‌ছেন।ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মোট ভোটার ২৪ লাখ ৫৩ হাজার ১৯৪জন।

এরমধ্যে পুরুষ ভোটার ১২ লাখ ৯৩ হাজার ৪৪১ এবং নারী ভোটার ছিলেন ১১ লাখ ৫৯ হাজার ৭৫৩ জন। ওয়ার্ড সংখ্যা ৭৫, সংরক্ষিত ওয়ার্ড ২৫টি। তবে দক্ষিণে ভোটের হার ছিল খুবই কম। মাত্র ২৯.০০২ শতাংশ ভোট কাস্টিং হয় বলে জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন।অন্যদিকে উত্তর সিটি করপোরেশনে ভোট প্রদানের হার দক্ষিণের থেকেও কম। মাত্র ২৫.৩০ শতাংশ ভোট কাস্ট হওয়ার তথ্য জানিয়েছে কমিশন। ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মোট ভোটার ছিল ৩০ লাখ ১২ হাজার ৫০৯ জন। ওয়ার্ড সংখ্যা ৫৪, সংরক্ষিত ওয়ার্ড ১৮।

ঢাকা দক্ষিণ ও উত্তরে কাউন্সিলর নির্বাচিত হলেন যারা

ঢাকা দক্ষিণ ও উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে কাউন্সিলর পদে বেসরকারি ফলাফল ঘোষণা শেষ হয়েছে। দক্ষিণে ৭৫টি সাধারণ ও ২৫টি সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলরের নাম ঘোষণা করা হয়েছে৷ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালার মূল মিলনায়তনে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা আবদুল বাতেন বেসরকারিভাবে এ ফলাফল ঘোষণা করেন।অন্যদিকে উত্তর সিটি করপোরেশনের ফলাফল ঘোষণা করেন রিটার্নিং কর্মকর্তা আবুল কাসেম।

ঢাকা দক্ষিণে কাউন্সিলর নির্বাচিত হলেন যারা-১ নম্বর ওয়ার্ড-মাহবুব আলম, ২ নম্বর ওয়ার্ড আনিসুর রহমান, ৩ নম্বর ওয়ার্ড মাকসুদ হেসেন, ৪ নম্বর ওয়ার্ড জাহাঙ্গীর হোসেন, ৫ নম্বর ওয়ার্ড চিত্ত রঞ্জন দাস, ৬ নম্বর ওয়ার্ড সিরাজুল ইসলাম ভাট্টি, ৭ নম্বর ওয়ার্ড শামসুল হুদা কাজল, ৮ নম্বর ওয়ার্ড সুলতান মিয়া, ৯ নম্বর ওয়ার্ড মোজাম্মেল হক, ১০ নম্বর ওয়ার্ড মারুফ আহমেদ মনসুর, ১১ নম্বর ওয়ার্ড মির্জা আসলাম আসিফ, ১২ নম্বর ওয়ার্ড মামুনুর রশিদ শুভ্রু, ১৩ নম্বর ওয়ার্ড এনামুল হক আবুল, ১৪ নম্বর ওয়ার্ড ইলিয়াসুর রহমান, ১৫ নম্বর ওয়ার্ড রফিকুল ইসলাম বাবলা, ১৬ নম্বর ওয়ার্ড নজরুল ইসলাম, ১৭ নম্বর ওয়ার্ড মাহবুবুর রহমান, ১৮ নম্বর ওয়ার্ড আ স ম ফেরদাউস আলম, ১৯ নম্বর ওয়ার্ড আবুল বাশার, ২০ নম্বর ওয়ার্ড ফরিদ উদ্দীন আহমেদ রতন, ২১ নম্বর ওয়ার্ড আসাদুজ্জামান, ২২ নম্বর ওয়ার্ড জিন্নাত আলী, ২৩ নম্বর ওয়ার্ড মো. মকবুল হোসেন, ২৪ নম্বর ওয়ার্ড মোকাদ্দেছ হোসেন জাহিদ, ২৬ নম্বর ওয়ার্ড হাসিবুর রহমান মানিক, ২৭ নম্বর ওয়ার্ড ওমর উদ্দীন আফজাল, ২৮ নম্বর ওয়ার্ড কামাল উদ্দীন কাবুল, ২৯ নম্বর ওয়ার্ড জাহাঙ্গীর আলম, ৩০ নম্বর ওয়ার্ড ইরফান সেলিম, ৩১ নম্বর ওয়ার্ড জুবায়ের আদেল।৩২ নম্বর ওয়ার্ড আব্দুল মান্নান, ৩৩ নম্বর ওয়ার্ড আওয়াল হোসেন, ৩৪ নম্বর ওয়ার্ড মোহাম্মদ মামুন, ৩৫ নম্বর ওয়ার্ড আবু সাইদ, ৩৬ নম্বর ওয়ার্ড রঞ্জন বিশ্বাস, ৩৭ আব্দুর রহমান, ৩৮ নম্বর ওয়ার্ড আহমেদ ইমতেয়াজ মান্নাফী, ৩৯ নম্বর ওয়ার্ড রোকন উদ্দীন, ৪০ নম্বর ওয়ার্ড আবুল কালাম আজাদ, ৪১ নম্বর ওয়ার্ড সারোয়ার হাসান আলো, ৪২ নম্বর ওয়ার্ড মো. সেলিম, ৪৪ নম্বর ওয়ার্ড নিজাম উদ্দীন, ৪৫ নম্বর ওয়ার্ড শামসুজ জোহা, ৪৬ নম্বর ওয়ার্ড শহীদ উল্লাহ, ৪৭ নম্বর ওয়ার্ড শাহানা আক্তার, ৪৮ নম্বর ওয়ার্ড আবুল কালাম, ৪৯ নম্বর ওয়ার্ড বাদল সরদার, ৫০ নম্বর ওয়ার্ড মোসুম মোল্লা, ৫১ হাবিবুর রহমান হাবু, ৫২ নম্বর ওয়ার্ড রুহুল আমিন, ৫৩ নম্বর ওয়ার্ড মির হুসেন মিরু, ৫৪ নম্বর ওয়ার্ড মো. মাসুদ, ৫৫ নম্বর ওয়ার্ড নুরে আলম, ৫৬ নম্বর ওয়ার্ড মোহাম্মদ হোসেন, ৫৭ নম্বর ওয়ার্ড সাইদুল ইসলাম, ৫৮ নম্বর ওয়ার্ড শফিকুর রহমান, ৫৯ নম্বর ওয়ার্ড আকাশ কুমার ভৌমিক, ৬০ নম্বর ওয়ার্ড আনোয়ার হোসেন মজুমদার, ৬১ নম্বর ওয়ার্ড জুমমুম মিয়া, ৬২ নম্বর ওয়ার্ড মুসতাক আহমেদ, ৬৩ নম্বর ওয়ার্ড শফিকুল ইসলাম দিলু, ৬৪ নম্বর ওয়ার্ড মাসুদ রহমান মোল্লা,
৬৫ নম্বর ওয়ার্ড শামসু উদ্দীন ভূঁইয়া, ৬৬ নম্বর ওয়ার্ড আব্দুল মতিন সাউদ, ৬৭ নম্বর ওয়ার্ড মো. ইব্রাহীম, ৬৮ নম্বর ওয়ার্ড মাহমুদুল হাসান, ৬৯ নম্বর ওয়ার্ড সালাউদ্দীন আহমেদ, ৭০ নম্বর ওয়ার্ড আতিকুর রহমান, ৭১ নম্বর ওয়ার্ড খাইরুজ্জামান, ৭২ নম্বর ওয়ার্ড শফিকুল ইসলাম শামীম, ৭৩ নম্বর ওয়ার্ড শফিকুল ইসলাম, ৭৪ নম্বর ওয়ার্ড আজিজুল হক ও ৭৫ নম্বর ওয়ার্ড আকবর হোসেন৷এর আগে ২৫ নম্বর সাধারণ ওয়ার্ডের মো. আনোয়ার ইকবাল ও, ৪৩ নম্বর সাধারণ ওয়ার্ডের মো. আরিফ হোসেন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন৷

সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে নির্বাচিত হয়েছেন – সংরক্ষিত মহিলা ওয়ার্ড
১ নম্বর ওয়ার্ড ফারজানা ইয়াসমী, ২ নম্বর ওয়ার্ড মাকসুদা শমসের, ৩ নম্বর ওয়ার্ড মিনু রহমান, ৪ নম্বর ওয়ার্ড ফারহানা ইসলাম ডলি, ৫ নম্বর ওয়ার্ড সৈয়দা রোকসানা ইসলাম চামেলী, ৭ নম্বর ওয়ার্ড সুরাইয়া বেগম, ৯ নম্বর ওয়ার্ড সাবিনা পারভীন, ১০ নম্বর ওয়ার্ড শামসুর নাহার, ১১ নম্বর ওয়ার্ড নাসরিন রশিদ পুতুল, ১২ নম্বর ওয়ার্ড সুরাইয়া বেগম, ১৩ নম্বর ওয়ার্ড শাহিনুর বেগম, ১৪ নম্বর ওয়ার্ড লাভলী চৌধুরী, ১৫ নম্বর ওয়ার্ড নাজমা বেগম, ১৬ নম্বর ওয়ার্ড নাছিম আহমেদ, ১৭ নম্বর ওয়ার্ড সাথী আক্তার, ১৮ নম্বর ওয়ার্ড খালেদা আলম, ১৯ নম্বর ওয়ার্ড শেফালি, ২০ নম্বর ওয়ার্ড নাসরিন, ২১ নম্বর ওয়ার্ড সেলিনা খাঁন, ২২ নম্বর ওয়ার্ড মাহফুজা আক্তার, ২৩ নম্বর ওয়ার্ড নিলুফা ইয়াসমিন, ২৪ নম্বর ওয়ার্ড ফারহানা ইয়াসমিন ও ২৫ নম্বর ওয়ার্ডে সাহিদা বেগম নির্বাচিত হয়েছেন৷এর আগে সংরক্ষিত ৬ নম্বর ওয়ার্ডে নারগীস মাহতাব এবং সংরক্ষিত ৮ নম্বর ওয়ার্ডে নিলুফার রহমান বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন৷

ঢাকা উত্তর সিটিতে কাউন্সিলর পদে বেসরকারিভাবে বিজয়ী যারা-২ নম্বর ওয়ার্ডে মো. সাজ্জাদ হোসেন, ৩ নম্বর ওয়ার্ডে কাজী জহিরুল ইসলাম, ৫ নম্বর ওয়ার্ডে আবদুর রউফ, ৭ নম্বর ওয়ার্ডে মো. তোফাজ্জেল হোসেন, ৮ নম্বর ওয়ার্ডে মো আবুল কাশেম, ৯ নম্বর ওয়ার্ডে কাজি মুজিব সারোয়ার, ১০ নম্বর ওয়ার্ডে আবু তাহের, ১১ নম্বর ওয়ার্ডে দেওয়ান আবুল মান্নান, ২৩ নম্বর ওয়ার্ডে মো. শাখাওয়াত হোসেন, ২৪ নম্বর ওয়ার্ডে মো. শফিউল্লাহ, ২৫ নম্বর ওয়ার্ডে আবদুল্লাহ আল মনজুর, ২৬ নম্বর ওয়ার্ডে শামিম হাসান, ২৭ নম্বর ওয়ার্ডে ফরিদুর রহমান খান, ২৮ নম্বর ওয়ার্ডে মো ফোরকান হোসেন, ২৯ নম্বর ওয়ার্ডে সলিমুল্লাহ সলু, ৩০ নম্বর ওয়ার্ডে মুক্তার সরদার।

৩১ নম্বর ওয়ার্ডে মো. শফিকুল ইসলাম, ৩২ নম্বর ওয়ার্ডে সৈয়দ হাসান নুর, ৩৩ নম্বর ওয়ার্ডে আসিফ আহমেদ, ৩৪ নম্বর ওয়ার্ডে শেখ মুহাম্মদ হোসান, ৩৬ নম্বর ওয়ার্ডে তৈমুর রেজা
৩৮ নম্বর ওয়ার্ডে আবুল কাশেম, ৪৩ নম্বর ওয়ার্ডে শফিকুল ইসলাম ভূঁইয়া, ৪৪ নম্বর ওয়ার্ডে মো শফিকুল শফিক, ৪৫ নম্বর ওয়ার্ডে জয়নাল আবদীন, ৪৬ নম্বর ওয়ার্ডে মো. জসহেদুল ইসলাম মোল্লা, ৪৭ নম্বর ওয়ার্ডে মোতালেব মিয়া, ৪৮ নম্বর ওয়ার্ডে মো. আলী আকবর, ৪৯ নম্বর ওয়ার্ডে মো. আনিসুর রহমান নাইম, ৫০ নম্বর ওয়ার্ডে ডিএম শামীম, ৫১ নম্বর ওয়ার্ডে মো. শরীফুর রহমান।ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে (ডিএনসিসি) ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী মো. আতিকুল ইসলাম এবং একই দলের অপর প্রার্থী শেখ ফজলে নূর তাপসকে বেসরকারিভাবে বিজয়ী ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন। শনিবার (১ ফেব্রুয়ারি) রাত সাড়ে ১১টার দিকে ঢাকা দক্ষিণের রিটার্নিং কর্মকর্তা আব্দুল বাতেন শিল্পকলা একাডেমি থেকে এবং রাত আড়াইটার পর ঢাকা উত্তরের রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. আবুল কাসেম শেরে বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় অডিটোরিয়াম থেকে পৃথকভাবে এ ফলাফল ঘোষণা করেন।

Comments

comments



আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯