শিরোনাম

প্রচ্ছদ জাতীয়, শিরোনাম

প্রস্তুত সোহরাওয়ার্দী উদ্যান : আ.লীগের জাতীয় সম্মেলন কাল

এনা অনলাইন : | বৃহস্পতিবার, ১৯ ডিসেম্বর ২০১৯ | সর্বাধিক পঠিত

প্রস্তুত সোহরাওয়ার্দী উদ্যান : আ.লীগের জাতীয় সম্মেলন কাল

আগামীকাল ২০ ডিসেম্বর, শুক্রবার থেকে শুরু হচ্ছে দু’দিনব্যাপী ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ২১তম জাতীয় সম্মেলন। এ উপলক্ষে বর্ণিল সাজে প্রস্তুত রয়েছে রাজধানী ঢাকার সোহরাওয়ার্দী উদ্যান। দলকে আরো শক্তিশালী ও গতিশীল করতে তরুণ নেতৃত্বকে স্বাগত জানিয়ে এ সম্মেলনের শুভউদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ইতোমধ্যে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে বিএনপিসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।

সূত্রে জানা যায়, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নতুন নেতৃত্বে আসছেন কারা-এ আলোচনা সর্বত্র।সভানেত্রী পদে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনাই থাকছেন। তবে সাধারণ সম্পাদক পদ নিয়ে নানা জল্পনা-কল্পনা আর আলোচনা শোনা যাচ্ছে। অন্য পদগুলোতে কারা আসছেন তা নিয়েও রয়েছে কেন্দ্র থেকে তৃণমূল পর্যায়ে নেতা-কর্মীদের মধ্যে ব্যাপক আগ্রহ। প্রেসিডিয়াম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদক পদে চমক আসতে পারে। অন্য পদগুলোতে কারা আসছেন তা নিয়েও চলছে আলোচনা। তৃণমূল থেকে কেন্দ্র পর্যন্ত সবাই চান শুদ্ধি অভিযানের ভিতরে দিয়ে হতে যাওয়া সম্মেলনে স্বচ্ছ ভাবমূর্তি ও ত্যাগীদের মূল্যায়ন। এছাড়া ভবিষ্যতে যারা দলের হাল ধরবে এবারের সম্মেলনের মাধ্যমে সেইসব তরুণ নেতাদের একধাপ এগিয়ে আনা হবে। এবার কেন্দ্রীয় কমিটিতে বঙ্গবন্ধু পরিবারের কয়েকজন তরুণ সদস্যকে দেখা যেতে পারে। আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলনে সবসময় অগ্রাধিকার পায় তরুণ নেতৃত্ব। তবে এবার তরুণদের নিয়ে প্রত্যাশাটা একটু বেশি। আগামী ১৫ বছর যারা আওয়ামী লীগের নেতৃত্ব দেবেন এমন তরুণদের দেখা যেতে পারে কেন্দ্রীয় কমিটিতে।



নতুন নেতৃত্বে আসছেন কারা-এ আলোচনা সর্বত্র। সম্মেলন উপলক্ষে বর্ণিল সাজে সাজানো হয়েছে রাজধানী ঢাকার সোহরাওয়ার্দী উদ্যান। সভানেত্রী পদে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনাই থাকছেন। তবে
সাধারণ সম্পাদক পদ নিয়ে নানা জল্পনা-কল্পনা আর আলোচনা থাকলেও অন্য পদগুলোতে কারা আসছেন তা নিয়েও রয়েছে কেন্দ্র থেকে তৃণমূল পর্যায়ে নেতা-কর্মীদের মধ্যে ব্যাপক আগ্রহ। প্রেসিডিয়াম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদক পদে চমক আসতে পারে। অন্য পদগুলোতে কারা আসছেন তা নিয়েও চলছে আলোচনা। তৃণমূল থেকে কেন্দ্র পর্যন্ত সবাই চান শুদ্ধি অভিযানের ভিতরে দিয়ে হতে যাওয়া সম্মেলনে স্বচ্ছ ভাবমূর্তি ও ত্যাগীদের মূল্যায়ন।

ভবিষ্যতে যারা দলের হাল ধরবে এবারের সম্মেলনের মাধ্যমে সেইসব তরুণ নেতাদের একধাপ এগিয়ে আনা হবে। এবার কেন্দ্রীয় কমিটিতে বঙ্গবন্ধু পরিবারের কয়েকজন তরুণ সদস্যকে দেখা যেতে পারে। আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলনে সবসময় অগ্রাধিকার পায় তরুণ নেতৃত্ব। তবে এবার তরুণদের নিয়ে প্রত্যাশাটা একটু বেশি। আগামী ১৫ বছর যারা আওয়ামী লীগের নেতৃত্ব দেবেন এমন তরুণদের দেখা যেতে পারে কেন্দ্রীয় কমিটিতে।

সংগঠন সূত্রে জানা যায়, নতুন কমিটিতে অধিক সংখ্যক তরুণ নেতাকে স্থান দেয়া হতে পারে।
আলোচনায় স্বচ্ছ ভাবমূর্তির বেশ কয়েকজন তরুণ নেতার নাম রয়েছে। তালিকার উপরে আছেন বঙ্গবন্ধুর পরিবারের বেশ কয়েকজন সদস্য। গত কাউন্সিলে বঙ্গবন্ধুর দৌহিত্র সজিব ওয়াজেদ জয়, রংপুর জেলার এক নম্বর সদস্য হন।

অটিজম বিশেষজ্ঞ সায়মা ওয়াজেদ পুতুল বিশ্ব পরিমণ্ডলে নিজের অবস্থান করে নিয়েছেন। শেখ রেহানার ছেলে রেদওয়ান সিদ্দিক ববি যুক্ত রয়েছেন গবেষণা প্রতিষ্ঠান সিআরআই’র সঙ্গে। আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে সরাসরি যুক্ত না হয়েও সংগঠনের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন তারা।
শেখ হেলাল উদ্দিনের ছেলে শেখ সারহান নাসের তন্ময় এরই মধ্যে বাগেরহাট-২ আসনের সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। আসন্ন সম্মেলনে এদেরকে কমিটিতে দেখতে চান সংগঠনের তরুণ নেতারা।

নীতি নির্ধারকরা জানান, বঙ্গবন্ধু পরিবারের তৃতীয় প্রজন্মকে কিভাবে দলে অন্তর্ভুক্ত করা হবে সে সিদ্ধান্ত নেবেন আওয়ামী লীগ সভানেত্রী। এর বাইরে স্বচ্ছ ইমেজের বেশ কয়েকজন তরুণ রয়েছেন আওয়ামী লীগের হাইকমাণ্ডের নজরে। যারা এরই মধ্যে তাদের কাজ আর দক্ষতার প্রমাণও দিয়েছেন।

বিএনপিকে আমন্ত্রণ
আওয়ামী লীগের ২১তম জাতীয় সম্মেলনে বিএনপিসহ বেশ কয়েকটি রাজনৈতিক দলকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। তবে জামায়াতে ইসলামীকে আমন্ত্রণের বাইরে রাখা হয়েছে।

আজ ১৯ ডিসেম্বর, বৃহস্পতিবার সকালে এসব রাজনৈতিক সংগঠনের কাছে সম্মেলনের আমন্ত্রণপত্র পাঠানো শুরু করে আওয়ামী লীগ।

বাংলাদেশ স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে এগারোটার দিকে আওয়ামী লীগের তিন সদস্যের প্রতিনিধি দল গুলশানে বিএনপি চেয়ারপার্সনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে আমন্ত্রণপত্র পৌঁছে দেন। ওই প্রতিনিধি দলে ছিলেন আওয়ামী লীগ নেতা জিয়াউদ্দিন শিপু, রাশিদুল বাশার ডলার এবং আলমগীর হাসান।

বিএনপির পক্ষে আওয়ামী লীগের আমন্ত্রণপত্র গ্রহণ করেন দলটির উপ-তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক নাসিরউদ্দিন নসু।

এর আগে, ওই প্রতিনিধি দলটিই জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদেরের হাতে সম্মেলনের আমন্ত্রণপত্র পৌঁছে দেন। উত্তরার নিজ বাসভবনে কাদের এ আমন্ত্রণপত্র গ্রহণ করেন।

আগামী ২০ ও ২১ ডিসেম্বর ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী লীগের ২১তম জাতীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে।

Comments

comments



আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯