সোমবার ২৩ মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ৯ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

নিউইয়র্কে উচ্ছেদ স্থগিতাদেশের মেয়াদ শেষ : আরও ফেডারেল সহায়তার জন্য গভর্নর ও মেয়রের আহ্বান

এনা অনলাইন :   শনিবার, ২২ জানুয়ারি ২০২২ 12719
নিউইয়র্কে উচ্ছেদ স্থগিতাদেশের মেয়াদ শেষ : আরও ফেডারেল সহায়তার জন্য গভর্নর ও মেয়রের আহ্বান

নিউইয়র্কে ভাড়াটিয়া উচ্ছেদ এবং ফোরক্লোজার স্থগিতাদেশের মেয়াদ শেষ হয়েছে গত ১৫ জানুয়ারি শনিবার। বিষয়টি গৃহহীনতার প্রান্তে থাকা পরিবারগুলোর ওপর সুদূরপ্রসারী প্রভাব ফেলতে পারে। এ কারণে নিউইয়র্কের গভর্নর ক্যাথি হোচুল ও সিটি মেয়র এরিক অ্যাডামস ফেডারেল সরকারকে আরও সহায়তার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন।

গভর্নর কার্যালয় আরোপিত রাজ্যের প্রায় দুই বছরের পুরনো উচ্ছেদ ও ফোরক্লোজার স্থগিতাদেশ গত শনিবার শেষ হয়েছে। এই স্থগিতাদেশের উদ্দেশ্য ছিল কোভিড মহামারি চলাকালে বাসিন্দাদের তাদের বাড়িতে রাখা এবং ভাড়াটিয়া ও বাড়িওয়ালা উভয়ের জন্য ভাড়া সহায়তা বিকল্পগুলো চালু রাখা।

ওয়েস্টার্ন নিউইয়র্কের ফ্যামিলি প্রমিজের মতো আশ্রয়কেন্দ্রগুলো এখন গৃহহীনতার সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ার আশা করছে।

ফ্যামিলি প্রমিজের এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর লুয়ান ফায়ারস্টোন বলেন, ‘আমি মনে করি, অবশ্যই প্রধান উদ্বেগের বিষয় হচ্ছে, আপনার একজন গৃহহীনদের দৃষ্টিকোণ থেকে, মানবসেবার দৃষ্টিকোণ থেকে, কাউন্টির দৃষ্টিকোণ থেকে, আমরা গৃহহীনতার বৃদ্ধি দেখতে যাচ্ছি।’

ফায়ারস্টোন বলেন, স্থগিতাদেশের সমাপ্তি একটি বড় কারণ হলেও গৃহহীন জনসমাগম এবং আশ্রয় সহায়তার অভাবের মতো সমস্যাগুলো মহামারির অনেক আগে থেকেই বিদ্যমান ছিল। তবে এটির দ্বারা আরও বেড়ে গেল।

ফায়ারস্টোন যোগ করেন, ফ্যামিলি প্রোমিজ ইতিমধ্যেই ধারণক্ষমতার বাইরে চলে গেছে। আশ্রয়কেন্দ্রটি পরিবার, মা, বাবা এবং বাচ্চাদের একত্রে রাখতে পারদর্শী, যারা অন্য গৃহহীন আশ্রয়কেন্দ্রে আলাদা হতে পারে।

ফায়ারস্টোন বলেন, ‘ভাড়াটিয়ারা এখন উচ্ছেদের জন্য অপেক্ষা করছেন এবং আমরা জানি যে অর্ধ মিলিয়ন নিউইয়র্কবাসী ঠিকমতো ভাড়া দিতে পারেননি।’

তিনি বলেন, যেসব পরিবার গৃহহীন হওয়ার আশঙ্কা করছে, তারা দ্রুততম উপায়ে সহায়তা পেতে ২১১ নম্বরে কল করতে পারে। আইনি পদক্ষেপ ও কষ্টের ভিত্তিতে উচ্ছেদের আবেদন তাদের কিছু সময় দিতে পারে। তবে আরও স্থায়ী সমাধানের প্রয়োজন রয়েছে।

ভাড়াটিয়াদের অধিকারের পক্ষের উকিলরা গত শুক্রবার নিউইয়র্ক পাবলিক লাইব্রেরি প্রাঙ্গণে সমাবেশ করেছেন। তারা যে পরিবারগুলো এখনো মহামারির মধ্যে লড়াই করছে, তাদের জন্য ফেডারেল ত্রাণ দাবি করেছেন।

প্রায় ১০০ জন বিক্ষোভকারী ১৪ জানুয়ারি শুক্রবার শহরের নেতাদের সাথে যোগ দিয়েছিলেন। তারা গভর্নর ক্যাথি হোচুলকে জুনের শেষ অবধি আরেক দফা উচ্ছেদ স্থগিতাদেশ বর্ধিত করার দাবি জানান।

গভর্নর ক্যাথি হোচুল বলেন, তিনি এবং ক্যালিফোর্নিয়াসহ অন্যান্য গভর্নররা আবারও ফেডারেল সরকারকে আরও সহায়তার জন্য আহ্বান জানাবেন।

নিউইয়র্ক জরুরি ভাড়া ত্রাণের জন্য ফেডারেল তহবিলের প্রায় অর্ধেক ২.৪ বিলিয়ন ডলার ব্যয় করেছে। বাকি বেশির ভাগই এখনো বাড়িওয়ালাদের কাছে পৌঁছাতে পারেনি। কারণ, রাজ্যের মতে, বাড়িওয়ালা এবং ভাড়াটিয়াদের সাথে যোগাযোগ করতে সমস্যা হচ্ছে।

মেয়র এরিক অ্যাডামস বলেন, ‘আমি গভর্নর হোচুল এবং নিউইয়র্ক কংগ্রেসের প্রতিনিধিদের আহ্বানের প্রতিধ্বনি করতে চাই, ফেডারেল ট্রেজারি বিভাগকে ফেডারেল সাহায্য ত্রাণ কর্মসূচিতে অবিলম্বে বৃদ্ধি করার জন্য অনুরোধ করছি।’

অ্যাডামস বলেন, ‘আমি জানি গৃহহীনতার দ্বারপ্রান্তে বাস করা কী। আমরা আমাদের শহরে আবাসনকে ঘিরে আরেকটি সংকটের মুখোমুখি হতে যাচ্ছি।’

Facebook Comments Box

Comments

comments

Posted ১২:০৫ অপরাহ্ণ | শনিবার, ২২ জানুয়ারি ২০২২

America News Agency (ANA) |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আর্কাইভ

President/Editor-in-chief :

Sayeed-Ur-Rabb

 

Corporate Headquarter :

 44-70 21st.# 3O1, LIC. New York-11101. USA, Phone : +6463215067.

Dhaka Office :

70/B, Green Road, 1st Floor, Panthapath, Dhaka-1205, Phone : + 88-02-9665090.

E-mail : americanewsagency@gmail.com

Copyright © 2019-2022Inc. America News Agency (ANA), All rights reserved.ESTD-1997