শিরোনাম

প্রচ্ছদ প্রবাস - সংগঠন, শিরোনাম

ঢাকাস্থ জালালাবাদ আ্যসোসিয়েশনের নির্বাচন অনুষ্ঠিত

এনা, ঢাকা : | রবিবার, ২৮ অক্টোবর ২০১৮ | সর্বাধিক পঠিত

ঢাকাস্থ জালালাবাদ আ্যসোসিয়েশনের নির্বাচন অনুষ্ঠিত

ড. এ কে আব্দুল মুবিন-সভাপতি, সহ-সভাপতি (জালালাবাদ) জালাল আহমদ, সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট জসিম উদ্দিন আহমেদ, কোষাধ্যক্ষ মোহাম্মদ ইমাম মেহ্দী চৌধুরী এনাম,

দিনভর ব্যাপক উৎসাহ -উদ্দীপনা ও গোধূলীবেলার টান টান উত্তেজনার মধ্য দিয়ে ঢাকাস্থ জালালাবাদ আ্যসোসিয়েশনের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। ২০১৮-১৯ সেশনে ড. এ কে আব্দুল মুবিনের নেতৃত্বাধীন প্যানেলের বেশীরভাগ সদস্য বিজয়ী হয়েছেন। তুমুল প্রতিদ্বন্ধীতাপূর্ণ এ নির্বাচনে  সাবেক ব্যাংকার সিএম কয়েস সামির নেতৃত্বাধীন প্রতিদ্বন্ধী প্যানেল সাধারণ সম্পাদকসহ ৯টি পদে জয় পেয়েছে।
গতকাল ২৭ অক্টোবর জালালাবাদের এসোসিশেনের এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। সকাল ৯ টা থেকে অনুষ্ঠিত নির্বাচনের ভোট গ্রহণ চলে সন্ধ্যা ৬ টা পর্যন্ত বিপুল সংখ্যক ভোটারের উপস্থিতিতে ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হয় এতে ৩৩ টি পদের বিপরীতে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন ৬৫ জন প্রার্থী।
নির্বাচিতরা হলেন-সভাপতি ড. এ কে আব্দুল মুবিন, সহ-সভাপতি (জালালাবাদ) জালাল আহমদ (অতিরিক্ত সচিব), সহ-সভাপতি (সিলেট) আব্দুল কাইয়ুম চৌধুরী, সহ-সভাপতি (মৌলভীবাজার) আব্দুল মজিদ চৌধুরী, সহ-সভাপতি (সুনামগঞ্জ) আকবর হোসেন মঞ্জু, সহ-সভাপতি (হবিগঞ্জ) ইঞ্জিনিয়ার মো. আজিজুর রহমান, সহ-সভাপতি (মহিলা) অধ্যাপিকা ফাতেমা চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট জসিম উদ্দিন আহমেদ, কোষাধ্যক্ষ মোহাম্মদ ইমাম মেহ্দী চৌধুরী এনাম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক-১ ফাহিমা খানম চৌধুরী মনি (১১৫৭ ভোট) , যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক-২ আনোয়ার হোসেন চৌধুরী, দপ্তর সম্পাদক মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম সজল, সাংগঠনিক ও জনসংযোগ সম্পাদক আ ফ ম সিরাজুল ইসলাম, শিক্ষা, সাহিত্য ও প্রচার সম্পাদক মাহমুদা আখতার মিনা, ক্রীড়া ও সংস্কৃতি সম্পাদক মোহাম্মদ নুরুল আমিন, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক ব্যারিস্টার সৈয়দা সীমা করিম, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক মোহাম্মদ নেছার আলম মুকুল, সদস্য(সিলেট) মো. দেলওয়ার হোসেন ও প্রকৌশলী মো. মুহিব উদ্দিন, সদস্য (মৌলভীবাজার) কাউন্সিলর জসীম উদ্দিন আহমেদ, ডা. সৈয়দ মোস্তাক আহমদ, সদস্য (সুনামগঞ্জ) ডা. মো. আবুল কালাম চৌধুরী, আলী মোর্শেদ খান, সদস্য (হবিগঞ্জ) এডভোকেট আবুল কালাম আজাদ ও মো. সেলিম চৌধুরী, সদস্য (জালালাবাদ) ইঞ্জিনিয়ার সৈয়দ মনুসিফ আলী, ডা. সিএম দিলওয়ার রানা, সৈয়দ আব্দুল মুক্তাদির, বনমালী ভৌমিক, শাকুর মজিদ, আব্দুল মজিদ চৌধুরী মিন্টু, আব্দুল কাদির মাহমুদ ও ডা. আহমদ পারভেজ জাবীন।

DSC_2851

এর আগে জালালাবাদ অ্যাসোসিয়েশনের বার্ষিক সাধারণ সভায় (এজিএম) প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত।

তিনি বলেন, দেশের অন্যান্য এলাকার চেয়ে সিলেটের শিক্ষার হার কম, কারণ অনেকে বলে আমাদের লোকজন খুব বেশি বিদেশ পাড়ি দেয়। অল্পকিছু লোক পড়াশোনা করেন। কিন্তু সিলেট তো কোনো উপকূলবর্তী এলাকা নয়, তারপরও শিক্ষার হার কম কেন?

সিলেটের ব্যাপক সংখ্যক লোক জাহাজে কাজ করেন উল্লেখ করে অর্থমন্ত্রী বলেন, ভারতীয় ইতিহাসে দাবি করা হয়, তাদের পক্ষ থেকে রাজা রামমোহন রায় ১৮২২ সালে সর্বপ্রথম বিলেতে যান। ইতিহাস কিন্তু তা বলেন না, ইতিহাস বলে প্রথম বিলেতে গিয়েছিলেন সিলেটি মানুষ। ১৮০০ সালে লন্ডনে গিয়েছিলো। তিনি তার বাপ-চাচার হত্যার প্রতিশোধের জন্য গিয়েছিলেন। এরা হলেন সৈয়দ হাদি ও সৈয়দ মাহাদী।

DSC_2864

জালালাবাদ অ্যাসোসিয়েশন নির্বাচনের সমালোচনা করেন মুহিত বলেন, সমঝোতার মাধ্যমে নতুন কমিটি করলে ভালো হতো। এর আগের আমরা ভোটবিহীন কমিটি গঠন করেছি। এটা ভালো দিক নয়।

অর্থমন্ত্রীর বক্তব্যের আগে জালালাবাদের সভাপতি সিএম তোফায়েল সামির সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ জগলুলপাশার ও কোষাধ্যক্ষ অ্যাডভোকেট জসিম উদ্দিন আহমদ ৩১ ডিসেম্বর ২০১৭ সমাপ্ত বছরের নিরীক্ষিত হিসাব পেশ করেন। এসময় সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক তিনটি সংশোধনীর প্রস্তাব তুলেন ধরেন।

Comments

comments

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১